সর্বশেষ সংবাদ

কোভিড১৯ সঙ্কটে  ক্ষুদ্র মাঝারী তরুণ উদ্যোক্তাদের সহযোগিতার লক্ষ্যে B’Yeah, গুগল এবং ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনালএর ‌র‍্যাপিড রেসপন্স  প্রোগ্রামে যুক্ত হতে হয়েছে

ইয়ূথ বিজনেস ইন্টারন্যাশনালের (ওয়াইবিআই) এর   নেতৃত্বে এবং গুগল.অর্গ এর আর্থিক সহযোগিতায় এই কর্মসূচিটি COVID-19 সঙ্কটে মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের অনলাইনভিত্তিক দক্ষতা প্রদান এবং মার্কেটিং লিংকেজে সহযোগিতা প্রদান করবে।

কোভি৩-১৯ এর প্রভাবে বিশ্ব অর্থনীতি একটি অভূতপূর্ব সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে  সাধারণত   কুটির, ক্ষুদ্র,  মাঝারি ব্যবসা অর্থনৈতিক মন্দার জন্য সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। কোভি৩-১৯ মহামারী তরুণ (১৮-৩৫ বছর বয়সী), নারী, পুরুষসহ নিম্নবিত্ত সম্প্রদায়ের উদ্যক্তা ও ব্যবসায়ীদের উপর বিশেষ গুরুতর প্রভাব ফেলেছে। অনেকে সঙ্কট মোকাবেলার জন্য লড়াই করছেন এবং এখনই তাদের সমর্থন ও সহযোগিতা প্রয়োজন।

কোভিড-১৯ সঙ্কটে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেনছেন   ভারটেক্স ক্রাফটের (পাটজাত পণ্য প্রস্তুতকারী) কর্ণধার  তরুণ উদ্যোক্তা মো: সাইফুল ইসলাম, তিনি বলেন, আমার মতো অনেক তরুণ উদ্যোক্তা এই মহামারী দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন। যদি এটি অব্যাহত থাকে তবে আমাদের ব্যবসা শীঘ্রই বন্ধ করতে হবে। এখনই   প্রয়োজন বিকল্প কিছু করা  এবং পরিস্থিতি সামাল দেওয়া সেই সাথে পরিস্থিতি বিবেচনা করে নতুন করে শুরু করা। এই পরিস্থিতি আত্মবিশ্বাসের সাথে মোকাবিলা করার জন্য আমাদের কেবল আর্থিকভাবেই নয়, বিকল্প পদ্ধতি যেমন  ডিজিটাল দক্ষতা  উন্নয়ন, অনলাইন প্রশিক্ষণ-মেন্টরিং, এবং ব্যবসায়িক পরামর্শ প্রয়োজন ।

তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, তার মতো অনেক  এসএমই উদ্যোক্তারা গুগলের সহযোগিতায়  বি’ইয়া যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে চলেছে, তা থেকে উপকৃত হতে পারেন। তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত যে COVID-19 পরিস্থিতি মোকাবেলায় এই প্রকল্পের মাধ্যমে  আমি অনলাইন কার্যক্রম সম্পর্কে নতুন কিছু শিখতে সক্ষম হব।’

কোভিড -১৯ মহামারীটি বি’ইয়া’র সহযোগিতা পাওয়া সব ধরণের উদ্যোক্তার ব্যবসাতেই প্রভাব ফেলেছে। বিশেষ করে যেসব উদ্যোগ উৎপাদন ও বিভিন্ন বিতরণ ব্যবস্থার উপর নির্ভরশীল সেগুলোই সর্বো চ্চ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে যে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে তা পরিস্থিতিকে আরও উদ্বেগজনক করে তুলেছে এবং অর্থনৈতিক মন্দার বৈশ্বিক প্রভাব ক্ষুদ্র ও মাঝরী আকারের  উদ্যোগগুলি নিশ্চিহ্ন হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে, Google.org এবং YBI এর সহায়তায়, বি’ইয়া পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতে বিকল্প উপায় হিসেবে এই মহামারী মোকাবেলায় অনলাইনভিত্তিক কার্যক্রম বাস্তবায়নের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। বি’ইয়া বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তের প্রায় ৪০০- ৫০০ উদ্যোক্তাদের অনলাইনের মাধ্যমে ব্যবসা পরামর্শ, নতুন নতুন বিষয়ে অননলাইন প্রশিক্ষণ, মেন্টরিং সেবা প্রদানসহ ব্যবসার নতুন ধারণার আদান-প্রদানের জন্য ওয়েবিনার/ জুম-এর সেশন পরিচালনার পাশাপাশি অনলাইনে  ব্যবসা পরামর্শ সেবা সরবরাহ করবে। তরুণ উদ্যোক্তারা যাতে এই সঙ্কট মোকাবেলায় নিজেদের দক্ষতা ও জানার পরিধি বৃদ্ধি করতে পারে সেই লক্ষ্যে  এই কার্যক্রমে গুগলের  কর্মীরা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে বি’ইয়া’র  সাথে  কাজ করবেন।  প্রকল্পটি ১৬ এপ্রিল ২০২০ থেকে ১৭ এপ্রিল ২০২১ বাস্তবায়ন করা হবে।

বি’ইয়া’র নির্বাহী পরিচালক আশফাহ হক বলেন, আমরা কোভিড-১৯ মহামারী সঙ্কটে তরুণ উদ্যোক্তাদের সহায়তায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তাই, Google.org এর অর্থায়নে YBI র‌্যাপিড  রেসপন্স কর্মসূচির অংশ হতে পেরে  আমরা আনন্দিত। ”

Digital skills are now more important than ever for #SmallBusinesses. But in #India and #Bangladesh, there are many challenges: from data security to costs & connectivity. We’re working with 

@Accenture

and IKEA Foundation to bridge the #digitaldivide:

more info:       https://www.youthbusiness.org/resource/digital-accelerator-in-india

Consideration for work at home ‘’বাসা থেকে উদ্যোগ পরিচালনায় বিবেচ্য বিষয়’’ শীর্ষক ফেসবুক লাইভ – Google

বিষয় উপস্থাপনায়: আমিনুল ইসলাম, সিইও, শাহিনস হেল্পলাইন

সঞ্চালনায়: মেহেদী হাসান কিংশুক, প্রোগ্রাম ডিরেক্টর, বি’ইয়া অংশগ্রহণে: বি’ইয়ার নিবন্ধিত উদ্যোক্তাবৃন্দ সমন্বয়কারী: মোঃ মাজেদুর রহমান রানা, এডমিন ও হিউম্যান রিসোর্স অফিসার, সজল মল্লিক, প্রোগ্রাম অফিসার 

Document: Download

Consideration for work at home ‘’বাসা থেকে উদ্যোগ পরিচালনায় বিবেচ্য বিষয়’’ শীর্ষক ফেসবুক লাইভ – IKEA

work at home

বিষয় উপস্থাপনায়: আমিনুল ইসলাম, সিইও, শাহিনস হেল্পলাইন

সঞ্চালনায়: মেহেদী হাসান কিংশুক, প্রোগ্রাম ডিরেক্টর, বি’ইয়া

অংশগ্রহণে: বি’ইয়ার নিবন্ধিত উদ্যোক্তাবৃন্দ

সমন্বয়কারী: মোঃ মাজেদুর রহমান রানা, এডমিন ও হিউম্যান রিসোর্স অফিসার, সজল মল্লিক, প্রোগ্রাম অফিসার

Document: Download

‘কোভিড-১৯ ও উদ্যোক্তাদের জন্য সরকারি প্রণোদনা ‘ শীর্ষক ফেসবুক লাইভ – IKEA

সঞ্চালনায়: মেহেদী হাসান কিংশুক, প্রোগ্রাম ডিরেক্টর, বি’ইয়া
বিষয় উপস্থাপনায় : মো: আকতারুজ্জামান, উইমেন এন্টোপ্রেনিয়ার্স ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিস্ট, এসএমইডিপি, এডিবি,
আলোচক: প্রফেসর সৈয়দ ফকরুল হাসান মুরাদ, ডিন, স্কুল অব সাইন্স, সাউথ ইষ্ট ইউনির্ভাসিটি, Chairman, Dept of Textile Engineering, ট্রেজারার, বি’ইয়া।
অংশগ্রহণে: মোঃ মাজেদুর রহমান রানা, এডমিন ও হিউম্যান রিসোর্স অফিসার, তানিয়া আক্তার ও সজল মল্লিক, প্রোগ্রাম অফিসার এবং উদ্যোক্তা বৃন্দ।
Document Download link: Download

প্রশিক্ষণ সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠানে বি’ইয়া’র সম্মানিত বোর্ড মেন্বার জনাব সালাউদ্দীন কাশেম খাঁন

বি’ইয়া’র সম্মানিত বোর্ড মেন্বার জনাব সালাউদ্দীন কাশেম খাঁন গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে ৫ দিন ব্যাপী ‘উদ্যোক্তা উন্নয়ন ও ব্যবসা ব্যবস্থাপনা বিষয়ক’ প্রশিক্ষণে তরুণ উদ্যোক্তাদের মাঝে সনদপত্র প্রদান করেন। বি’ইয়া’র তরুণ উদ্যোক্তা উন্নয়নের চলমান কার্যক্রমকে গতিশীল ও ফলপ্রসু করতে বি’ইয়া’র বোর্ড মেন্বারগণ নিয়মিত কার্যক্রম পরিদর্শন করছেন। প্রশিক্ষণে ২২ জন তরুণ উদ্যোক্তা ৫ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণে মূখ্য প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ সমন্বয়কারী শাহিন ফরহাদ ও প্রোগ্রাম অফিসার এন্টিনা গ্রেস। সামগ্রিকভাবে তত্বাবধানে ছিলেন প্রকল্প ব্যবস্থাপক মেহেদী হাসান। আমন্ত্রিত প্রশিক্ষক হিসেবে সেশন পরিচালনা করেছেন জনাব শাহরিয়ার সাদাত ও জনাব কামরুল ইসলাম।

আইনী অধিকারের মাধ্যম ব্যবসায়িক সমস্যা সমাধানে সচেতন হতে হবে তরুণ উদ্যোক্তাদেরকে

বি’ইয়া’র প্রকল্প সমন্বয় কমিটি ( পিসিসি)’র সদস্য জনাব শাহারিয়ার সাদাত গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে ‘ব্যবসা ও আইনী অধিকার’ বিষয়ক একটি শেসন পরিচালনা করেন। বি’ইয়া’র আয়োজনে ও ব্যবস্থাপনায় উক্ত প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী ২২ জন তরুণ উদ্যোক্তার কাছে এ ধরনের ‘ব্যবসা ও আইনী অধিকার’ বিষয়টি একটি সম্পূর্ণ নতুন ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ বলে বিবেচিত হয়। জনাব শাহারিয়ার তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতিদিনের ব্যবসা সংক্রান্ত বেশ কিছু সমস্যাকে দলীয় কাজের মাধ্যমে তাদের তুলে আনেন।তরুণ উদ্যোক্তারা বলেন, আমরা সাধারণ চোখে আলোচিত সমস্যাগুলোকে শুধু সমস্যাই মনে করি, যা আমাদের ব্যবসাকে বাধাগ্রস্ত করছে। জনাব শাহারিয়ার আইনী ব্যাখ্যার আলোকে দেখান যে, ছোট ছোট সমস্যা যা উদ্যোক্তারা এড়িয়ে যান বা সমস্যা মনে করেন না, তা আসলে আইনী অধিকারের মধ্যেই পড়ে। যে অধিকার বাংলাদেশ সরকার একজন সাধারণ নাগরিককে পাবার ও ভোগ করার জন্য দিয়েছে। একটু সচেতন হলে এবং সততার সাথে ব্যবসা করলে যে কোন উদ্যোক্তাই আইনী অধিকারের মাধ্যমে ব্যবসাকে সমস্যা মুক্ত করতে পারে এবং এগিয়ে যতে পারে।

এখন থেকে বি’ইয়া’র প্রশিক্ষণ ও কর্মশালা এবং ব্যবসা বিষয়ক আলোচনায় ব্যবসা এগিয়ে নিতে আইনী সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে বলে বি’ইয়া’র প্রোগ্রাম ম্যানেজার জনাব মেহেদী হাসান কিংশুক প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

তরুণ উদ্যোক্তাদের ব্যবসায়িক মেন্টরিং সহযোগিতাকে আরও কার্যকর করার লক্ষ্যে পরিচালিত হল- ‘‘মেন্টরিং ডেভেলপমেন্ট ওয়ার্কশপ-২০১৭’’

বাংলাদেশ ইয়ূথ এন্টারপ্রাইজ এ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টার (বি’ইয়া) এর আয়োজনে ব্যবসায় ক্ষেত্রে পেশাদারিত্ব ও তরুণ উদ্যোক্তা তৈরি’র প্রয়াসকে সামনে রেখে গত ০৫ থেকে ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে সিক্স সিজন হোটেল, গুলশান-২ এ অনুষ্ঠিত হলো মেন্টরদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ ও কর্মশালা। উক্ত প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করেন আর্ন্তজাতিক ব্যবসায়িক মেন্টর বিশেষজ্ঞ জোয়ানা গ্রে, মেন্টরিং প্রোগ্রাম প্রধান, Youth Business International (YBI)।

কর্মশালায় জোয়ানা গ্রে বলেন, বাংলাদেশের তরুণ উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে নিয়োজিত মেন্টরদের প্রশংসা সত্যি প্রসংশানীয়। তিনি আরও বলেন- YBI বিশ্বব্যাপী মেন্টরিংয়ের উপর যে কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে তারই ধারাবাহিকতায় বি’ইয়ার উদ্যোগে এই আয়োজনের অংশ হতে পেরে আমি আনন্দিত। অংশগ্রহণকারী মেন্টর জনাব গুলশান নাসরিন চৌধুরী বলেন, যে সব তরুণ উদ্যোক্তা অভিজ্ঞতা ছাড়াই ব্যবসা করছে তাদেরকে বি’ইয়ার এই কার্যক্রমে অন্তর্ভূক্ত করা হলে তারা লাভবান হবে এবং বাংলাদেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন তরান্বিত হবে। পাশাপাশি আজকের এই প্রশিক্ষণ মেন্টরদের দিকনির্দেশনা প্রদান করবে।

অনুষ্ঠানে আয়োজক প্রতিষ্ঠান পক্ষ থেকে বি’ইয়ার নির্বাহী কমিটির সদস্য জনাব আহমাদুল হক বলেন- বি’ইয়া, YBI এর সদস্য হিসেবে বাংলাদেশে তরুণ উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে বদ্ধ পরিকর। এই প্রক্রিয়ায় যেসব মেন্টরগণ বি’ইয়ার সাথে জড়িত রয়েছেন তাদের সকলকে তিনি ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি মেন্টরদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রক্রিয়া চলমান রাখার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিজ্ঞপ্তি

সর্বশেষ সংবাদ

  শেষ হলো বি’ইয়া আয়োজতি তরুণ উদ্যোক্তার পণ্য মলো- ২০১৮

চাকরি প্রার্থী হবে চাকরিদাতা এই শ্লোগান নিয়ে বাংলাদেশ ইয়ূথ এন্টারপ্রাইজ অ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টার এর উদ্যোগে তরুণ উদ্যোক্তাদের নিয়ে  ৩ দিন ব্যাপী তরুণ উদ্যোক্তার পণ্য মেলা – ২০১৮। মেলার উদ্বোধন করেন বি’ইয়ার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপারসন জনাব আব্দুল-মূয়ীদ চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন বি’ইয়ার সস্মানিত চেয়ারপারসন জনাব ব্যারিস্টার মনজুর হাসান, নির্বাহী সদস্য ওবাইদুর রব , ও এম.কে আরেফ, প্রকল্প ব্যবস্থাপক মেহেদী হাসান, বি’ইয়ার তরুণ উদ্যোক্তাদের মেন্টরগণ, কর্মকর্তা এবং বি’ইয়ার তরুণ উদ্যোক্তা সদস্যরা। রাজধানীর ধানমন্ডির ২৭ (পুরাতন) নম্বরে ডব্লিওভিএ মিলনায়তনে এই তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্যের মেলা ১৮ই ফ্রেবুয়ারি রবিবার থেকে ২০শে ফ্রেবুয়ারি মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত । মেলায় মোট ৫0 টি স্টলে বিভিন্ন ধরনের হাতে তৈরি পোশাক, হারবাল প্রসাধনী, চামড়াজাত পণ্য, ফুড আইটেম, ইলেকট্রনিক্স পণ্য, গিফট আইটেমসহ বিভিন্ন ধরনের সামগ্রী । এছাড়া তরুণ উদ্যোক্তার তৈরি রোবট গেইম মেলায় বেশ সাড়া ফেলেছে। মেলার উদ্বোধন কালে বি’ইয়ার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপারসন জনাব আব্দুল- মূয়ীদ চৌধুরী তরুণ উদ্যোক্তাদের ব্যবসা সম্প্রসারনের লক্ষ্যে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন এবং সেই সাথে তরুণ উদ্যোক্তাদের ব্যবসাকে প্রসারিত করার জন্য অনুপ্রাণিত করেন। তিনি আরো বলেন, তরুণরাই আগামী দিনের ভবিষ্যত, তরুণরাই পারে উদ্যোগ গ্রহণ করে এসএমই শিল্পের বিকাশ সাধন করতে এবং কর্মসংস্থান তৈরি করতে। জনাব মনজুর হাসান বলেন, এ ধরনের মেলা তরুণদের নিজেদের প্রতি আস্থা অর্জনে বিশেষ ভূমিকা রাখে। আগামী দিনের ভবিষ্যতকে আরো শক্তিশালী করে একটা উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে তরুণরাই পারে সাহসী হয়ে উদ্যোগ গ্রহন করতে এবং সুজনশীল পণ্য তৈরি করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে। এই পণ্য মেলা তরুণদেরতে চাকরি প্রার্থী থেকে চাকরিদাতায় পরিণত করতে সহায়তা করবে বলে তিনি মনে করেন। মেলায় আগত ক্রেতারা পণ্য কিনে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। সেই সাথে তরুণদের এ ধরণের উদ্যোগকে স্বাগত জানান।

প্রকাশনা

Title: TOR YBI IKEA Final Decent Work Research

Date: 2020-6-20

Title: উদ্দক্তার খবর

Date: 2018-01-11

Title: Publication 1

Date: 2017-01-11

Title: Publication 2

Date: 2017-01-04

Title: Comic Relief Final

Date: 2017-01-20

Title: Comic Relief Final

Date: 2017-01-20

Title: Publication 4

Date: 2017-08-11